দ্য বিট্রেয়াল অব ইষ্ট পাকিস্তান

বইবাজার মূল্য : ৳ ৩২০ (২০% ছাড়ে)

মুদ্রিত মূল্য : ৳ ৪০০





WISHLIST


Overall Ratings (1)

Sohag
22/04/2020

'দ্য বিট্রেয়াল অব ইষ্ট পাকিস্তান" বইতে লিখেছেন- "শত্রুর (ভারতের) ৩০ মিমি কামানের পাল্লা ছিল যেখানে ৩০ হাজার গজ, সেখানে আমাদের কামানের পাল্লা ছিল মাত্র ১১ হাজার গজ। আমি পেয়েছিলাম মাত্র একটি ট্যাংক রেজিমেন্ট এবং এম-২৪ লাইট চ্যাফে ট্যাঙ্কসহ এক স্কোয়াড্রন ট্যাংক। এগুলো ছিল কোরীয় যুদ্ধে ব্যবহৃত ট্যাংক। ১৯৪৪ সনে এই ট্যাংক যুদ্ধে নামানো হয়...এসব ট্যাঙ্ক ভারতের আধুনিক ট্যাংকের বিরুদ্ধে 'অকার্যকর' বলে প্রমাণিত হয়। কিছু ট্যাংকে 'ফ্যানবেল্টের' পরিবর্তে ছিল 'দড়ি' এবং আরো কিছু ট্যাংক ছিল যেগুলিকে অন্য ট্যাংক দিয়ে টেনে টেনে স্টার্ট দিতে হতো....আমার একটিও ভারী অথবা মাঝারি কামান ছিলো না।" কথা হচ্ছে- যেখানে নিয়াজি নিজে বলছেন যে, তার অস্ত্রশস্ত্র ছিল সেকেলে/ অকার্যকর, ১৯৪৪ সনের যুদ্ধে ব্যবহৃত 'ফ্যানবেল্টের' পরিবর্তে দড়ি দিয়ে বাধা ট্যাংক, কামানগুলির রেঞ্জ ছিল ভারতীয় কামানের রেঞ্জের তিনভাগের একভাগ, ভারী ও মাঝারি কোন কামান ছিলো না- সেখানে গত ৪৫ বছর ধরে সেই জাসদ থেকে শুরু করে বিএনপি পর্যন্ত নিয়াজীর আন্ডাবাচ্চারা বলে আসছে ভারতীয় সৈন্যরা নাকি পাকিস্তানীদের রেখে যাওয়া 'উন্নত' অস্ত্রশস্ত্র সব নিয়ে গেছে! ওই সব পচাধচা অস্ত্র দিয়ে ভারতীয় সৈন্যরা কি ঘোড়ার ঘাস কাটবে? ব্যাটারা, এখন মুখটা একটু ধো, কুলি কর ভালো করে।


SIMILAR BOOKS

PAYMENT OPTIONS

Copyrights © 2018 BoiBazar.com