আমি একজন সেলসম্যান!

    4 Ratings     6 Reviews

বইবাজার মূল্য : ৳ ১৫০ (২৫% ছাড়ে)

মুদ্রিত মূল্য : ৳ ২০০

প্রকাশনী : আদর্শ





WISHLIST


Overall Ratings (6)

SAZIB
20/08/2020

বইটি পড়লাম, ভালো লেগেছে।


Opi
22/04/2020

লেখকের ব্যাক্তিগত জীবনের বিভিন্ন ঘটনা নিয়ে সাজানো বইটি পড়ে আমার তেমন একটা ভালো লাগে নি। অনেক অপ্রাসঙ্গিক বিষয় দিয়ে বইয়ের কলেবর বাড়ানো হয়েছে। বইটি যেরকম হাইপ তুলেছিল প্রচারণার ব্যপারে বইটি পড়ার পর তার সাথে তেমন মিল খুঁজে পেলাম না। আমার বার বার মনে হয়েছে লেখক উদ্দেশ্যহীন ভাবে লিখে গিয়েছে। মোটকথা হতাশ হয়েছি বইটি পড়ে।


Al amin
08/04/2020

সেলসম্যানদের সংগ্রাম, চাকরি জীবনে বিক্রয় চাপ সামলে তাদের এগিয়ে যাওয়ার অনেক উদাহরণ আমি নিজে চোখে দেখেছি । আবার সেই চাপ সইতে না পেরে ভেঙ্গে পড়তে দেখেছি অনেককে । এই বইটিতে আমার অনেক বাস্তব অভিজ্ঞতা একটু ভিন্নভাবে উপস্থাপন করতে চেয়েছি ।  কর্পোরেট সংস্কৃতিতে যারা অভ্যস্থ, যারা সেল্স পেশায় আছেন, যারা প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন বিভাগীয় প্রধান, অথবা শীর্ষ কর্মকর্তা এই বইয়ে তারা নিজেদের খুঁজে পাবেন । যারা নতুন, ক্যারিয়ার মাত্র শুরু করেছেন কিংবা চাকরি খুঁজছেন এই গল্প তাদেরও । এমনকি যারা তরুণ উদ্যেক্তা, টিম তৈরী করতে মুখিয়ে আছেন তারাও খুঁজে পাবেন ভিন্ন স্বাদ। জীবনে টাকা পয়সা অর্জনের বাইরে আরো অনেক কিছু করার আছে আমাদের । যারা নিজেদের জীবনের উদ্দেশ্য খোঁজ করছেন । মানুষের কল্যাণের জন্য, মঙ্গলের জন্য বুক চিতিয়ে দাঁড়িয়ে যাওয়ার কথা যারা ভাবছেন, এই বই তাদের জন্য বিশাল অনুপ্রেরণা হবে।


Md.Al-Imran Hemel
31/03/2020

আমার কাছে মনে হয়েছে বইটি মুলতঃ বাস্তব জীবনের উপর নির্ভর করে লিখিত একটি উপন্যাসধর্মী বই। যেখানে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে একজন সেলসম্যান এর জীবনের ব্যাক্তিগত, পারিবারিক ও পেশাগত নানাবিধ সমস্যা ও এই সমস্যা থেকে কিভাবে উৎরানো সম্ভব তা আলোচনা করা হয়েছে। যেমনঃ ব্যাক্তিগত জীবনে প্রেম-ভালোবাসার সংমিশ্রণে সিজিন্ড হওয়া, পারিবারিকভাবে স্ত্রী, সন্তান-সন্তুতিকে সময় দেয়া এবং পেশাগত জীবনে "টিট ফর ট্যাট" এই পন্থা অবলম্বন না করে কিভাবে ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স এর প্রয়োগ ঘটিয়ে প্রতিকূল অবস্থা নিজের অনুকূলে আনা যায় তা অতি সুন্দর করে বোঝানো হয়েছে। প্রতিষ্ঠানের স্বার্থে কারোও সাথে কঠোরতা অবলম্বন করলেও মনের অভ্যন্তরে সেই মানুষটির অন্তরের অবস্থা অনুধাবন করা উচিত এটিও শেখানো হয়েছে। কাউকে ছুঁড়ে ফেলাই কোন সমাধান নয় বা প্রতিশোধ নেয়ার সুযোগ পেয়েই প্রতিশোধ পরায়ণ হওয়াই কোন আত্মসন্তুস্টির ব্যাপার হতে পারেনা তা শেখানো হয়েছে। বরং উক্ত ব্যক্তিকে তার প্রত্যাশিত আচরণের চেয়ে কয়েকগুণ বেশী উত্তম ব্যবহার করে তাকে শেখানো উচিত।


Salim
30/03/2020

,, আমি একজন সেলসম্যান,,,, বইটি একটি গল্পের মাধ্যমে লেখক সেলসম্যানদের জীবনের দৈনন্দিন কাজ, প্রেম- ভালোবাসা, টার্গেট পুরনের সাফল্য -ব্যর্থতা ইত্যাদি তুলে ধরেছেন। একজন সেলসম্যান শুধু একজন রোবন নয়, রক্তে গড়া মানুস। তার জীবনের চাওয়া - পাওয়া রয়েছে। আমার আপনার মত তারও পরিবার রয়েছে। তার ছোট ছোট অনেক স্বপ্ন রয়েছে। বিক্রয় পেশায় কারনে অকারনে অবস্থানের পরিবর্তন হয়। কিন্তু জদি একটা ভালো টিম জদি গঠন করা জায় তবে জেকোন টার্গেট ছোয়া জায়। তীরে এসে তরী ডুবল বলে মনে না করে তীরে আসার জন্য মাঝি কতটা পরিশ্রম করল সেটাই দেখার বিসয়। সেলসম্যানদের চেহেরা সবসময় প্রাণবন্ত। একে অন্যের প্রতি আন্তরিক হলে যেকোনো কাজেই সফলতা অপরিহার্য। শুধু নিজেকে রোবট না ভেবে রিলেশনশিপ গুলো মেইন্টেন্স করতে হবে। শুধু একটি শব্দ 'ভালোবাসি' কথাটি বাঁচিয়ে রাখে সম্পর্কগুলোকে হাজার হাজার বছর। সেলসম্যানদের সংগ্রাম, চাকরি জীবনে বিক্রয় চাপ সামলে তাদের এগিয়ে যাওয়ার অনেক উদাহরণ রয়েছে, আবার সেই চাপ সইতে না পেরে ভেঙ্গে পরেছে অনেককে । কর্পোরেট সংস্কৃতিতে যারা অভ্যস্থ, যারা সেল্স পেশায় আছেন, যারা প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন বিভাগীয় প্রধান, অথবা শীর্ষ কর্মকর্তা এই বইয়ে তারা নিজেদের খুঁজে পাবেন । যারা নতুন, ক্যারিয়ার মাত্র শুরু করেছেন কিংবা চাকরি খুঁজছেন এই গল্প তাদেরও । এমনকি যারা তরুণ উদ্যেক্তা, টিম তৈরী করতে মুখিয়ে আছেন তারাও খুঁজে পাবেন ভিন্ন স্বাদ। জীবনে টাকা পয়সা অর্জনের বাইরে আরো অনেক কিছু করার আছে আমাদের । যারা নিজেদের জীবনের উদ্দেশ্য খোঁজ করছেন । মানুষের কল্যাণের জন্য, মঙ্গলের জন্য বুক চিতিয়ে দাঁড়িয়ে যাওয়ার কথা যারা ভাবছেন, এই বই তাদের জন্য বিশাল অনুপ্রেরণা হবে। আমি একজন সেলসম্যান বইটি সত্যি কার্যকরী একটি বই,,,


Rayhan Adam
14/02/2020

বই_রিভিউঃ 📖 #আমি_একজন_সেলসম্যান... #লেখকঃ ✒তানভীর শাহরিয়ার রিমন যদিও আমার রিভিউ পাঠক মনে তেমন কোন প্রভাব বিস্তার করতে সক্ষম হবে না। তারপরও লেখকের লিখার মান ও চিন্তা শক্তির উন্নয়নের প্রয়োজনে হলেও রিভিউ প্রয়োজন, হোক তা ইতিবাচক বা নেতিবাচক। সোস্যাল মিডিয়ায় তিনি একজন ব্লগার ও কলামিস্ট হিসেবেই পরিচিত। তবে লেখক হিসেবে তাঁর বইয়ের সংখ্যা সর্বসাকুল্যে ২টি। কিন্তু তাঁর লেখনীশৈলীতে তা মোটেও পরিলক্ষিত হয়নি যে তিনি একজন সৌখিন লেখক। আমি একজন সেলসম্যান বইটি পড়ে তাঁর লেখনীর দ্বারা পাঠক হৃদয় জয় করতে সক্ষম হয়েছেন বলেই আমার বিশ্বাস। ১.🔍 প্রথমেই যদি কিছু বলতে হয় তাহলে বলবো #প্রচ্ছদের ব্যাপারে। বইয়ের মলাটের প্রচ্ছদটি দেখলেই বোঝা যায় যে বিভিন্ন ধরনের সিম্বোলিক সাইন সম্বলিত অর্থবহ চমকপ্রদ একটি কাভার। যা নানা ধরনের ইংগিত ও অর্থ বহন করে। ২.🔍 #উৎসর্গ করা হয়েছে লেখকের মা'কে। মা'কে উৎসর্গ করে লিখাটুকু এতোটাই হৃদয়স্পর্শী ও মাতৃপ্রেম সম্বলিত যা পড়লে পুরো বই পড়ার ব্যাপারে ব্যাপক আগ্রহের সৃস্টি হবে এবং যে কারোও মন ভালো হয়ে যাবে বলে আমার বিশ্বাস। ৩.🔍#ভুমিকা অংশটুকুও খুবই চমকপ্রদ ছিলো। ডেসটিনি/ ভাগ্যের উপর তাঁর অগাধ বিশ্বাস কথাটি প্রতিটি বিশ্বাসী মানুষেরই ভালো লাগবে। "যখন যা করেছেন ইবাদতের মতোই করেছেন" এটি একটি শিক্ষনীয় বিষয় ছিল। ৪.🔍#ধরনঃ আমার কাছে মনে হয়েছে বইটি মুলতঃ বাস্তব জীবনের উপর নির্ভর করে লিখিত একটি উপন্যাসধর্মী বই। যেখানে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে একজন সেলসম্যান এর জীবনের ব্যাক্তিগত, পারিবারিক ও পেশাগত নানাবিধ সমস্যা ও এই সমস্যা থেকে কিভাবে উৎরানো সম্ভব তা আলোচনা করা হয়েছে। যেমনঃ ব্যাক্তিগত জীবনে প্রেম-ভালোবাসার সংমিশ্রণে সিজিন্ড হওয়া, পারিবারিকভাবে স্ত্রী, সন্তান-সন্তুতিকে সময় দেয়া এবং পেশাগত জীবনে "টিট ফর ট্যাট" এই পন্থা অবলম্বন না করে কিভাবে ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স এর প্রয়োগ ঘটিয়ে প্রতিকূল অবস্থা নিজের অনুকূলে আনা যায় তা অতি সুন্দর করে বোঝানো হয়েছে। প্রতিষ্ঠানের স্বার্থে কারোও সাথে কঠোরতা অবলম্বন করলেও মনের অভ্যন্তরে সেই মানুষটির অন্তরের অবস্থা অনুধাবন করা উচিত এটিও শেখানো হয়েছে। কাউকে ছুঁড়ে ফেলাই কোন সমাধান নয় বা প্রতিশোধ নেয়ার সুযোগ পেয়েই প্রতিশোধ পরায়ণ হওয়াই কোন আত্মসন্তুস্টির ব্যাপার হতে পারেনা তা শেখানো হয়েছে। বরং উক্ত ব্যক্তিকে তার প্রত্যাশিত আচরণের চেয়ে কয়েকগুণ বেশী উত্তম ব্যবহার করে তাকে শেখানো উচিত। ৫.🔍#ভাষাঃ ভাষাগত দিক চিন্তা করলে বলবো এটি খুবই সহজ ভাষায় লিখার জন্য খুব সহজেই সকল ধরনের পাঠকেরা এটি পড়তে পারবেন এমনকি যাদের তেমন বই পড়ার অভ্যেস নেই তারাও লেখকের মনের কথা অর্থাৎ লেখক তাঁর লেখায় কী বোঝাতে চাইছেন বা কি বার্তা পৌঁছাতে চাইছেন তা খুব সহজেই অনুধাবন করা সম্ভব হবে বলেই মনে করি। ৬.🔍#আকারঃ বইটি মাত্র ৮০ পৃষ্ঠার। যারা অনিয়মিত বা নতুন পাঠক এমনকি যারা বই দেখলেই ভয় পান যে কখন পড়ে শেষ করবেন বা শুরু করলে আদৌ শেষ করতে পারবেন কিনা বলে সন্দেহ পোষন করেন তারাও এই বইটি আগ্রহ নিয়ে পড়তে চাইবেন বলেই মনে করি। কারন, আকারে সংক্ষিপ্ত হলেও অল্প কথায় বিপুল অর্থবহন করেছে বইটি। সবশেষে এ বইয়ের ভালোলাগা কিছু চুম্বকাংশঃ 🔬সবসময় মনে রেখো, জীবনে দুধরনের পেইন আছে । কিছু পেইন আমাদের কষ্ট দেয় । কিছু পেইন আমাদের বদলে দেয় । কিন্তু দু’ধরনের পেইনই আমাদের সাহায্য করে-বড় হতে । 🔬একসাথে না থাকার জন্য হাজারটা কারণ খোঁজা যেতে পারে কিন্তু থাকার জন্য কেবল একটা কারনই যথেষ্ট-ভালোবাসা ! 🔬কারো কোনো কথা যদি তোমাকে নেগেটিভ ভাবে নিয়ন্ত্রন করে ফেলে তাহলে বুঝতে হবে যেকোনো কিছুই তোমার উপর নিয়ন্ত্রন নিতে পারবে। ধন্যবাদ সবাইকে।


SIMILAR BOOKS

PAYMENT OPTIONS

Copyrights © 2018-2021 BoiBazar.com